মঙ্গলবার, ২১ মে ২০১৯, ০৫:৪৬ অপরাহ্ন

Logo
সংবাদ শিরোনাম :
লন্ডনের পথে প্রধানমন্ত্রী অবশেষে সিঙ্গাপুরে গেলেন সুবীর নন্দী মোশাররফ করিমের ফুল এইচডি’র ডাবল সেঞ্চুরি শমী কায়সারের বিরুদ্ধে ১০০ কোটি টাকার মানহানি মামলা ফিডব্যাকের চার দশক পূর্তিতে জমকালো কনসার্ট আজ ওয়ার্নার-রশিদের নৈপুণ্যে জয়ে ফিরল হায়দরাবাদ ওয়ার্নার ঝড়ে হায়দরাবাদের ২১২ বুধবার সকালে দেশ ছাড়বে টাইগাররা আইপিএল ছাড়ার আগে ওয়ার্নারের আবেগঘন বার্তা নতুন জার্সির হাতা কিংবা কলারে যোগ হতে পারে লালের ছোঁয়া কলা মানেই ম্যাজিক! কিডনি সমস্যা দূর করে এলাচ রাগ যেভাবে নিয়ন্ত্রণ করবেন কুড়িগ্রামে জলাশয়-পুকুর সংস্কারের নামে চলছে ‘পুকুর চুরি’ আইএস’র দায় স্বীকারের বিষয়টি পরীক্ষা করা হচ্ছে : ডিএমপি কমিশনার
ওয়ার্নার ঝড়ে হায়দরাবাদের ২১২

ওয়ার্নার ঝড়ে হায়দরাবাদের ২১২

টসের সময়ই অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন জানিয়েছিলেন চলতি আইপিএলে এটিই শেষ ম্যাচ অস্ট্রেলিয়ান ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নারের। আর নিজের শেষ ইনিংসটিকে কি দারুণভাবেই না সাজিয়ে রাখলেন বাঁহাতি এ ওপেনার।

জাতীয় দলের ডাকে দেশে ফেরার আগে চলতি আইপিএলে নিজের শেষ ইনিংসে ওয়ার্নার খেলেছেন ৫৬ বলে ৮১ রানের ঝড়ো ইনিংস। সঙ্গে ঋদ্ধিমান সাহা, মনিশ পান্ডেরা ছোট কিন্তু কার্যকরী ইনিংস খেলায় ২১২ রানের বিশাল সংগ্রহ পেয়েছে হায়দরাবাদ। ম্যাচ জিততে কিংস এলেভেন পাঞ্জাবকে করতে হবে ২১৩ রান।

টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে প্রথম পাওয়ার প্লে’তেই ৭৭ রান যোগ করেন দুই ওপেনার ঋদ্ধিমান সাহা এবং ডেভিড ওয়ার্নার। তার আগে মাত্র ২৪ বলে দলীয় পঞ্চাশ পূরণ করে এবারের আসরে দ্রুততম দলীয় ফিফটির রেকর্ডটিও গড়েন এ দুজন।

ইনিংসের সপ্তম ওভারের দ্বিতীয় বলে সাজঘরে ফেরেন ঋদ্ধিমান। আউট হওয়ার আগে খেলেন ৩ চার ও ১ ছয়ের মারে ১৩ বলে ২৮ রানের ইনিংস। দ্বিতীয় উইকেটে জুটি বাঁধেন মনিশ এবন ওয়ার্নার। দুজন মিলে যোগ করেন ৫৫ বলে ৮২ রান।

ইনিংসের ১৬তম ওভারে তিন বলের ব্যবধানে দুজনকেই ফেরান পাঞ্জাব অধিনায়ক রবিচন্দ্রন অশ্বিন। ঋদ্ধিমানের মতোই ৩ চার ও ১ ছয় হাঁকান মনিশ, খেলেন ২৫ বলে ৩৬ রানের ইনিংস।

অন্যদিকে চলতি আসরে ১২তমবারের মতো ব্যাট করতে নেমে নবম পঞ্চাশোর্ধ রানের ইনিংস খেলেন ওয়ার্নার। আউট হওয়ার আগে ৭ চার ও ২ ছয়ের মারে করেন ৮১ রান। শেষদিকে মোহাম্মদ নবীর ১০ বলে ২০ এবং উইলিয়ামসনের ৭ বলে ১৪ রানের ইনিংসে ৬ উইকেটে ২১২ রান পর্যন্ত পৌঁছায় হায়দরাবাদের ইনিংস।

পাঞ্জাবের পক্ষে বল হাতে ২টি করে উইকেট নেন মোহাম্মদ শামী এবং রবিচন্দ্রন অশ্বিন। মুরুগান অশ্বিন এবং আরশদ্বীপ সিংয়ের ঝুলিতে যায় ১টি করে উইকেট।

সংবাটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *